আসুন নিজেই বানাই কীজেন ভিজ্যুয়াল বেসিক ২০০৮ দিয়ে | Make keygen by using Visual Basic 2008


  • Visual Basic 2008 Keygen Tutorial 1
    Visual Basic 2008 Keygen Tutorial 1
  • Visual Basic 2008 Keygen Tutorial 2
    Visual Basic 2008 Keygen Tutorial 2

প্রথমে ভিজুয়াল বেসিক ২০০৮টি ওপেন করি। File > New > Project এ ক্লিক করি অথবা কীবোর্ড হতে Ctrl + Shift + N প্রেস করি। Project Types হতে Visual Basic > Windows সিলেক্ট করি। Tamplets হতে Windows Form Application সিলেক্ট করুন। Name এর জায়গায় নাম দিন। আমি Keygen by Md Foysal Hossain Sohag দিয়েছি। Create a directory for solution চেকবক্সটি চেক করে দিন, এতে এই নামে একটি নতুন ফোল্ডার তৈরী হবে এবং তার ভিতরে এই প্রজেক্টের সব ফাইল থাকবে। Location থেকে যেখানে ফোল্ডারটি মানে প্রজেক্টটা যেখানে সেভ করতে চান তা সিলেক্ট করুন। এবার ok বাটনে ক্লিক করুন।

Visual Basic 2008 Keygen Tutorial 1

Visual Basic 2008 Keygen Tutorial 1

একনজরে কিছু জিনিস শিখে নিন, যা এই কাজটি করতে জানা লাগবে-

Visual Basic 2008 Keygen Tutorial 2

Visual Basic 2008 Keygen Tutorial 2

এখন Form1 নামে একটি ফর্ম পাবেন। সেটিকে আপনার প্রয়োজন মত রিসাইজ করুন মাউস দিয়ে। বাম পাশে Toolbox হতে All Windows Forms এর আন্ডারে কিছু টুল পাবেন। সেখান হতে Button ও Text Box এ দুটি ড্রাগ করে ফর্মের উপর ফেলুন। এবার এ দুটোকে প্রয়োজন মত রিসাইজ করুন। এবার আমরা Button ও Form এর প্রোপার্টিজ সেট করবো। এজন্যে যেকোন এক্টির উপর রাইট বাটন ক্লিক করে Properties সিলেক্ট করবো। তারপরে ডান পাশের প্রোপার্টিজ অপশন হতে কিছু জিনিস সেট করবো।

আসুন প্রথমেই বাটনের উপর রাইটবাটন ক্লিক করে Properties সিলেক্ট করি। এবার বাম পাশের প্রোপার্টজ প্যানেলের Text লেবেলের ফিল্ডে আমরা Button 1 লেখা দেখতে পাবো। Button 1 লেখাটি মুছে Generate and Copy লিখে দেই।

এবার Form এর উপর রাইট বাটন ক্লিক করে Properties সিলেক্ট করি। তারপরে ডান পাশের প্রোপার্টিজ প্যানেলের Text লেবেল যুক্ত ফিল্ডে Form 1 লেখাটা পাবো সেটি মুছে দিয়ে KeyGen টির নাম দেই। আমি MFOHS KeyGen নাম দিলাম। তারপরে Icon লেবেল যুক্ত ফিল্ডের … চিহ্নিত বাটনে ক্লিক করে এপ্লিকেশনটির জন্য একটি আইকন সিলেক্ট করে দেই। এবার Maximize লেবেলে ডাবল ক্লিক করলে এটি True থেকে False হয়ে যাবে। এবার Form Border Style হতে FixedDialog সিলেক্ট করে দেই।

এবার Project > Project Name (Keygen by Md Foysal Hossain Sohag-সবার লাস্টে) সিলেক্ট করুন। এবার Application ট্যাবের Icon কম্বোবক্স হতে Browse সিলেক্ট করুন। এবার আইকনটি সিলেক্ট করে দিন।

ব্যাস কাজ শেষ এখন কোড লিখবো। আরেকটি কথা বলে দেই এখন। এতক্ষণ আমি ভূমিকা না দিয়ে সরাসরি লেখা শুরু করি তাই এখন কথা গুলো বলে নেই। আমি এসএসসি এর কম্পিউটার শিক্ষা (ঐচ্ছিক) বিষয়ের পাঞ্জেরী গাইডের প্রাক্টিক্যাল অংশ পড়ে ভিজুয়াল বেসিকের উপর আকৃষ্ট হই। যেহেতু আমি কমার্সের স্টুডেণ্ট তাই এটিকে আমি হবি হিসেবে নিয়েছিলাম আর তাই তেমন কিছু শিখা হয়ে উঠে নি। শুধু মাত্র ক্লিক করে করে যা শিখা যায় তাই শিখেছি। আর প্রয়োজনে বিভিন্ন কোড নিয়ে ঘাটাঘাটি করি। তবে তা সপ্তাহে ৫মিনিট করেও গড়ে পড়ে না। তাই যেকোন প্রোগ্রামারের কাছে আমার লেখাটা খারাপ লাগতে পারে এটিই স্বাভাবিক। তবে আমি মনে করি আমার ফুল কমার্স ব্যাকগ্রাউন্ডের ফ্রেন্ডদের কাছে এই জিনিসটাই অস্বাভাবিক বটে। আর এটিই আমাকে অনুপ্রেরণা যোগায় সারাদিন পিসি নিয়ে বসে থাকতে।

তো কোড লিখার জন্য যে বাটন বানালাম তার উপর ডাবল ক্লিক করি। তাহলে কোড লেখার উইন্ডো ওপেন হবে। এবার আগে থেকেই আমরা চার লাইন কোড পাবো। এইরকম-

Public Class Form1
Private Sub Button1_Click(ByVal sender As System.Object, ByVal e As System.EventArgs) Handles Button1.Click

End Sub
End Class

এবার প্রথম দুইলাইন পড়ে নিচের কোডটুকু পেস্ট করি-

TextBox1.Text = "Md. Foysal Hossain Sohag"
Clipboard.Clear()
Clipboard.SetText(TextBox1.Text)

তাহলে পুরো কোডটি হবে নিচের মত-

Public Class Form1
Private Sub Button1_Click(ByVal sender As System.Object, ByVal e As System.EventArgs) Handles Button1.Click
TextBox1.Text = "Md. Foysal Hossain Sohag"
Clipboard.Clear()
Clipboard.SetText(TextBox1.Text)
End Sub
End Class

এবার সেভ করবো প্রজেক্টটি। এজন্য File > Save All এ ক্লিক করুন অথবা কীবোর্ড হতে Ctrl + Shift + S প্রেস করুন।

প্রজেক্টটি রান করতে চাইলে কীবোর্ড হতে F5 প্রেস করুন। তাহলে দেখবেন আপনার কীজেন এপ্লিকেশনটি রান হচ্ছে। এখন এপ্লিকেশনটি চেক করতে পারেন। এবার এপ্লিকেশনটি ক্লোজ করুন। ভিজুয়াল বেসিক প্রোগ্রামটি নয় যেই উইন্ডো ওপেন হয়েছে F5 প্রেস করার পর সেটি ক্লোজ করবেন।

এবার Build মেনু হতে Build Solution এ ক্লিক করুন বা কীবোর্ড হতে Ctrl + Shift + B প্রেস করুন। এবার আপনি যেখানে আপনার প্রজেক্ট ফোল্ডারটি তৈরী করেছিলেন সেখানে যান। লোকেশানটি এরকম হবে Progect NameProject NamebinDebug ফোল্ডারের ভিতরে একটি .exe এক্সটেনশনের ফাইল পাবেন। আইকন হবে আপনি যেই আইকনটি সবার লাস্টে সিলেক্ট করেছিলেন সেটি। এটিই আপনার কীজেন ফাইল।

এবার আসুন পুরো কাজটির ব্যাখ্যা করি। কোনটা কেন করলাম তা এখন আলোচনা করবো। যাতে আপনি এই প্রজেক্ট শিখে নিজে অন্য ধরণের একটি প্রজেক্ট তৈরী করতে পারেন।

আপনাদের আমি কোডিং কম যাতে করতে হয় সেভাবে দেখিয়েছি। যেমন আমরা যে ফর্মের টাইটেলটি চেঞ্জ করলাম তারপরে বাটনের নাম দিলাম এগুলো সব কোডিং করে করা যায়। তবে যেহেতু মেনু বা বিভিন্ন টুল ইউস করার সুবিধা আছে তাই সেটিই ব্যবহার করে দেখালাম।

প্রথমে আমরা যেই আইকনটি সিলেক্ট করেছিলাম সেটি ছিলো ফর্মের আইকন। আর দ্বিতীয়টি ছিলো ফাইলের আইকন।

এখন আসুন দেখে নেই কোডের বর্ণনা। বাটনে ডাবল ক্লিক করে কোড টাইপ করেছি। এর মানে হচ্ছে বাটনে ক্লিক করলে আমার এপ্লিকেশনটি রান করবে। আমি অন্য ভাবেও কোডিং করতে পারতাম এতে আমার দ্বিতীয় ও তৃতীয় লাইনটি নিজের টাইপ করতে হতো। লাইন দুটো হলো-

Private Sub Button1_Click(ByVal sender As System.Object, ByVal e As System.EventArgs) Handles Button1.Click
End Sub

এবার এই দুই লাইনের মাঝের কোডে আসি।

TextBox1.Text = "Md. Foysal Hossain Sohag"

এখানে TextBox1 হলো টেক্সট বক্সের নাম আর Text হলো প্রোপার্টি। সোজা বাংলায় বাটনে ক্লিক করলে যে টেক্সট বক্সটি বানালাম সেটিতে কি টেক্সট দেখানো হবে তাই এই লাইনে লেখা হয়েছে। এখানে আমার নামের জায়গায় আপনি আপনার সফটওয়্যারটির সিরিয়াল নাম্বারটি লিখে দিবেন। অবশ্যই ইনভার্টেড কমার ভিতরেই লিখতে হবে।

Clipboard.Clear()

এই কোডের মাধ্যেমে ক্লিপ বোর্ড ক্লিয়ার করা হয়েছে। আমরা কোন কিছু কপি করলে তা ক্লিপবোর্ডেই জমা থাকে।

Clipboard.SetText(TextBox1.Text)

এই কোডের মাধ্যেমে আমরা ক্লিপ বোর্ডে টেক্সট বক্সের লেখাটি নিয়ে গেছি। এর মানে টেক্সট বক্সে যে লেখাটি দেখাবে তা একই সাথে কপি হয়ে যাবে ক্লিপ বোর্ডে। পড়ে যে কোন যায়গায় গিয়ে Ctrl + V প্রেস করলে কোডটি পেস্ট হয়ে যাবে।

অনেক ফাও প্যাচাল করলাম। আমি জানি কিছুই বুঝেননি। কারন আমি আমার ফ্রেন্ডদের ল্যাপটপে কিভাবে ফটোশপ দিয়ে পাথ করতে হয় হাতে কলমে শিখিয়েছিলাম। বাট রেজাল্ট শূন্য। কেউ এক ফোঁটাও বুঝে নাই। আর এটি তো লিখে দিলাম। কতটুকুই বা বুঝবেন কে জানে? কোন অংশ না বুঝলে নিচে কমেন্টে জানান। চেষ্টা করবো বুঝাতে। আর সাথে পুরো প্রজেক্ট ফাইলগুলো দিয়ে দিলাম। নিজের পছন্দ মত এডিট করেও কাজ সারতে পারবেন। আর স্ক্রীনশট কম দেয়ার চেষ্টা করেছি এতে লাভ দুইটা। আমার লাভ হলো ঝামেলা কম। আর আপনার লাভ হল একটা করতে গিয়ে আরেকটা চোখে পড়বে। তাই আমি সবসময় বলি যে ডিকশনারী খুঁজে না জানা অর্থ বের করুন এতে আশেপাশের শব্দ গুলো চোখে পড়বে।

যাদের ভিজুয়াল বেসিক নেই তারা এখান থেকে নামাতে পারেন আমি যেই ভার্সন ইউস করি সেটি। তবে আমরাটি ডিস্ক হতে ইন্সটল করা। আর আপনাদের দিচ্ছি অফিসিয়াল ডাউনলোড লিংক।

সবাইকে শুভেচ্ছা…

ফেসবুক মন্তব্য

মোঃ ফয়সাল হোসেন সোহাগ

জীবনটা কতই মধুর, যদি পাশে থাকে কেউ। বৃষ্টির টুপুর টাপুর শব্দ, পরন্ত বিকেলে হৃদয়ে মৃদু দোলা দিয়ে যায় তখন, যখন পাশে থাকে কেউ। ছোট্ট এই জীবন, সীমিত আয়ু, যান্ত্রিক পৃথিবী, যান্ত্রিক এই আমি, একটু শান্তির সন্ধানে... গুগল অথরশীপ লিংক

নিচের গুলোও আপনার ভাল লাগতে পারে...

6 টি মন্তব্য

  1. একটা সফটওয়্যার বানানোর পোস্ট হইলে প্লাস দিতাম! আপনি দেখি কিজেন বানানো শিখাইতাছেন! মাইনাচ 😉 😛

    • হি হি হি !!!
      এইভাবে ভেবে দেখি নাই। আমি যেটুকু জানি সেইটা দিয়ে তেমন ভাল সফট বানানো যায় না।
      আর পিচ্চি সফট বানানোর টিউটোরিয়াল লেখলে কেউ দেখবে না…
      আর কীজেনটা সবাই চায় তাই দিলাম 😛 এর আগে একজনকে এইটার ভিডিও টিউটোরিয়াল দিয়েছিলাম বাট সেইটা হারিয়ে ফেলেছি 😛
      কিভাবে নিউফাইট এর সাথে অটো ফাইট করতে হয় সেইটা নিয়া একটা কিছু আবিষ্কার করার জন্য গবেষণা করবো 😛

    • অর্নব প্রতীম রায় says:

      হে হে । সফটওয়ার বানানো এতো সোজা না । http://computerclubbd.com/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_wacko.gif

  2. অর্নব প্রতীম রায় says:

    হে হে ১০ এ ১৯৯ http://computerclubbd.com/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_good.gif আরো নতুন নতুন টিওটোরিয়াল চাই । http://computerclubbd.com/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_yahoo.gif

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Enable Google Transliteration.(To type in English, press Ctrl+g)

http://computerclubbd.com/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_bye.gif 
http://computerclubbd.com/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_good.gif 
http://computerclubbd.com/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_negative.gif 
http://computerclubbd.com/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_scratch.gif 
http://computerclubbd.com/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_wacko.gif 
http://computerclubbd.com/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_yahoo.gif 
http://computerclubbd.com/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_cool.gif 
http://computerclubbd.com/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_heart.gif 
http://computerclubbd.com/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_rose.gif 
http://computerclubbd.com/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_smile.gif 
more...